বিকাশ পিন ভুলে গেলে করণীয় কি? Bkash Pin forget and reset

কোনো আকস্মিক কারণে আপনি যদি বিকাশ পিন ভুলে যান, তাহলে বিকাশ পিন ভুলে গেলে যে করণীয় রয়েছে সেই করণীয় সম্পর্কে জেনে নেয়ার প্রয়োজন হয়।

অর্থাৎ আপনি যদি বিকাশ পিন ভুলে যান, তাহলে বিকাশ পিন ভুলে গেলে করণীয় সম্পর্কে যদি অবগত হতে না পারেন তাহলে বিকাশ পিন রিসেট কখনোই করতে পারবেন না।

আজকের এই আর্টিকেলে মূলত দেখানো হবে যদি আপনি কোন আকস্মিকভাবে বিকাশ পিন ভুলে যান, তাহলে এই পিন রিসেট করার নিয়ম রয়েছে সেই নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য।

বিকাশ পিন ভুলে গেলে রিসেট করা কি সম্ভব?

আপনি যদি ইন্টারনেট ব্যবহারকারী হয়ে থাকেন তাহলে এরকম অনেক ওয়েবসাইট পাবেন কিংবা অন্যান্য অনেক রকমের একাউন্ট অপেন যে সমস্ত একাউন্টের পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে সহজে রিসেট করা যায়।

পাসওয়ার্ড ভূলে যাওয়ার পরে অ্যাকাউন্ট তৈরি করার সময় আপনি যে ইমেইল আইডি কিংবা ইউজারনেম দিয়েছিলেন যে ইমেইল আইডি এবং ইউজারনেম সঠিকভাবে দিয়ে দিলেই পাসওয়ার্ড রিসেট করার লিংক আপনার ইমেইলে চলে যায়।

এবং যখনই আপনি এই লিংকে ক্লিক করেন তখন একাউন্টের পাসওয়ার্ড চেঞ্জ করার কাজ সহজেই সম্পন্ন করতে পারেন।

তবে, কোন ভাবে আপনি যদি বিকাশ একাউন্টের পিন নাম্বার ভুলে যান , তাহলে বিকাশ একাউন্ট এর পাসওয়ার্ড রিসেট করার কাজ কিছুটা ভিন্ন। কারণ এতে রয়েছে সিকিউরিটি জনিত বিভিন্ন বিষয়।

Also Read:

যখন আপনি পাসওয়ার্ড রিসেট করার জন্য ইচ্ছা পোষণ করেন, তখন বিকাশ অথরিটি টিম সমস্ত সিকিউরিটি জনিত বিষয়গুলো তদারকি করে এবং তারপরে পাসওয়ার্ড সেট করে দিবে।

নতুন পাসওয়ার্ড রিসেট করা কিছুটা কষ্টকর হলেও আপনার কাছে যদি রিয়েল ডকুমেন্ট থাকে এবং আপনি যদি আসলেই বিকাশ একাউন্টের সঠিক মালিক হয়ে থাকেন তাহলে পাসওয়ার্ড রিসেট সহজেই করতে পারবেন।

বিকাশ পিন রিসেট করার নিয়ম

আপনি শুধু বিকাশ একাউন্টের পিন রিসেট করে নিতে চান তাহলে বিকাশ একাউন্ট রিলেটেড দুইটি ডকুমেন্টস এর প্রয়োজন হবে।

আর সেটা হলো বিকাশ একাউন্ট তৈরি করার সময় আপনার ন্যাশনাল আইডি কার্ডে দিয়েছিলেন সেটি এবং যে নাম্বার দিয়ে আপনি অ্যাকাউন্ট তৈরি করেছিলেন সেই মোবাইল নাম্বার।

উপরে উল্লেখিত ন্যাশনাল আইডি কার্ডের ডকুমেন্টস এবং মোবাইল নাম্বার যদি আপনার কাছে থাকে তাহলে বিকাশ অথরিটি টিম এটা নিশ্চিত করবে যে আপনি আসলেই এই বিকাশ একাউন্ট ব্যবহারকারী?

আর যখনই বিকাশ কর্তৃপক্ষ এটা নিশ্চিত করতে পারবে যে আপনি বিকাশ একাউন্ট এর সঠিক ব্যবহারকারি তখন তারা পাসওয়ার্ড রিসেট করার কাজ সম্পন্ন করে দিবে।

আপনি চাইলে ভিন্ন দুটি উপায়ে বিকাশ একাউন্টের পিন রিসেট করে নিতে পারবেন আর সেগুলো হলো বিকাশ কাস্টমার কেয়ার নাম্বারে কল করা এবং বিকাশ লাইভ চ্যাট।

তাহলে এবার দেখে নেয়া যাক এই দুইটি উপায়ে কিভাবে আপনি সহজে বিকাশ একাউন্টে নতুন পিন রিসেট করবেন।

কাস্টমার কেয়ার নাম্বার এ কল করে বিকাশ পিন রিসেট

কাস্টমার কেয়ার নাম্বার এ কল করার মাধ্যমে আপনি যদি বিকাশ এর নতুন পিন নাম্বার নিয়ে নিতে চান, তাহলে যে সমস্ত স্টাপ ফলো করতে হবে সেগুলো সম্পর্কে নিচে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

  • এই কাজটি করার জন্য প্রথমত বিকাশ কাস্টমার কেয়ার নাম্বারে কল করুন। বিকাশ কাস্টমার কেয়ার নাম্বার হলোঃ ১৬২৪৭
  • উপরোক্ত কাস্টমার কেয়ার নাম্বার এ কল করার পরে আপনি তাদেরকে পিন রিসেট করতে চান এই সম্পর্কে অবহিত করুন।
  • তারপরে বিকাশ অথরিটি টিম আপনার অ্যাকাউন্ট সম্পর্কিত ডিটেলস জানতে চাইবে।
  • সঠিক তথ্য দেওয়ার জন্য আপনার ন্যাশনাল আইডি কার্ড সাথে রাখুন।
  • মনে রাখবেন, কল করার সময় অবশ্যই সেই নাম্বার থেকে কল করবেন যে নাম্বার দিয়ে বিকাশ একাউন্ট তৈরি করা আছে।
  • বিকাশ কর্তৃপক্ষ আপনার কাছ থেকে মূলত শেষ দুইটি ট্রানজেকশন ডিটেলস, অ্যাকাউন্ট যার নামে রয়েছে তার নাম এবং আইডি কার্ডের নাম্বার চাইবে।

এই সমস্ত ডিটেইলস বা তথ্য আপনি যদি সঠিকভাবে বিকাশ কর্তৃপক্ষকে দিতে পারেন, তাহলে সহজেই তারা আপনার একাউন্টের পিন রিসেট করে দিবে।

বিকাশ লাইভ চ্যাট এর মাধ্যমে পিন রিসেট

এছাড়াও বিকাশ পিন ভুলে গেলে, আপনি চাইলে বিকাশ এর যে লাইভ চ্যাট সেবা রয়েছে সে লাইভ চ্যাট সেবার মাধ্যমে সহজেই নতুন পিন সেটাপ করে নিতে পারবেন।

বিকাশ লাইভ চ্যাট এর মাধ্যমে কথা বলে পিন রিসেট করার জন্য প্রথমত নিম্নলিখিত লিংকে ক্লিক করুন।
Bkash live Chat

উপরে উল্লেখিত লিংকে যখন আপনি ভিজিট করবেন, তখন আপনার সামনে নতুন একটি ওয়েব পেইজ ওপেন হবে। সেখান থেকে আপনি বিকাশ লাইভ চ্যাট করার একটি বক্স নিচের দিকে দেখতে পারবেন।

কাস্টমার প্রতিনিধির সাথে লাইভ চ্যাট করার জন্য মূলত আপনাকে কিছু সময় অপেক্ষা করতে হবে, তাহলে একজন কাস্টমার প্রতিনিধি আপনার সাথে সম্পৃক্ত হয়ে যাবে।

কাস্টমার প্রতিনিধি আপনার সাথে সম্পৃক্ত হওয়ার পরে আপনি বিকাশ পিন রিসেট করতে চান সেই সম্পর্কে তাদেরকে অবগত করুন।
বিকাশ পিন ভুলে গেলে করণীয় কি? Bkash Pin forget and reset
যখনই আপনি তাদেরকে এই সম্পর্কে অবগত করবেন যে আপনি বিকাশ পিন ভুলে গেছেন এবং বিকাশ পিন রিসেট করতে চান, তখন তারা আপনার অ্যাকাউন্ট নাম্বার চাইবে অ্যাকাউন্ট নাম্বার টি যথাযথভাবে দিয়ে দিন।
বিকাশ পিন ভুলে গেলে করণীয় কি? Bkash Pin forget and reset
অ্যাকাউন্ট নাম্বার টি যথাযথভাবে দেয়ার পরে বিকাশ অথরিটি টিম আপনার অ্যাকাউন্ট রিলেটেড বিভিন্ন তথ্য জানতে চাইবে এ সমস্ত তথ্য গুলো সঠিকভাবে তাদের কাছে দিয়ে দিন।

মূলত, একাউন্টে ডকুমেন্ট হিসেবে তারা আপনার ভোটার আইডি কার্ডের যে নাম্বার রয়েছে সেই নাম্বার এবং ভোটার আইডি কার্ডের নাম রয়েছে সেই নাম সহ আরও যাবতীয় তথ্য জানতে চাইবে।

আপনি যদি এই সমস্ত তথ্য সঠিকভাবে তাদের কাছে পেশ করতে পারেন, তাহলে বিকাশ লাইভ চ্যাট করার মাধ্যমে আপনি বিকাশ পিন রিসেট করে নিতে পারবেন।

আর কিভাবে খুব সহজে বিকাশ একাউন্টের পিন নাম্বার ভুলে গেলে এটি সেটআপ করতে হয়, এই সম্পর্কে আশা করি আপনি বিস্তারিত তথ্য জেনে নিতে পেরেছেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Scroll to Top